সেলিব্রেটিস
আশরাফুল এর সংবাদগুলো

অন্য অভিযুক্তদের কাছে আশরাফুলের আহ্বান
ইনকিলাব
১৪ আগষ্ট, ২০১৩
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টু’কে কলুষমুক্ত করতে ১ কোটি ৬৪ লাখ টাকা খরচ করে আইসিসি’র দুর্নীতি দমন বিভাগ (আকসু) নিযুক্ত করে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বিসিবি’র কাছ থেকে ক্ষমতা নিয়ে বিপিএল চলাকালে ড্রেসিং রুমে পর্যন্ত প্রবেশাধিকার পেয়ে ব্যাপক অনুসন্ধান এবং গোয়েন্দাগিরি করে যে ক্লু পেয়েছে, তার উপর ভিত্তি করে তাদের তদন্তে সহায়ক হয়েছে ঢাকা গ্লাডিয়েটর্স-এর পারফরমার আশরাফুলের সরল স্বীকারোক্তি। চিটাগাং কিংস এবং বরিশাল বার্নার্সের বিপক্ষে ম্যাচ ছেড়ে দিতে ঢাকা গ্লাডিয়েটর্স ফ্রাঞ্চাইজির মালিকপক্ষ সরাসরি তাকে প্ররোচিত ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়েছে এনবিআর
সমকাল
০৪ জুলাই, ২০১৩
ফিক্সিংয়ের অভিযোগ স্বীকার করে নেওয়া ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলের ব্যাংক হিসাবের যাবতীয় তথ্য চেয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।   একই সঙ্গে বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের মালিক সেলিম চৌধুরীর আয়কর ফাইলও তলব করেছে এনবিআর।   বৃহস্পতিবার কয়েকটি সংবাদপত্রে আশরাফুলের ব্যাংক হিসাব জব্দ করার খবর বেরিয়েছে। তবে এনবিআর সূত্রে জানা গেছে, আশরাফুলের ব্যাংক হিসাব জব্দ করার কোনো নির্দেশনা তারা দেননি। বিভিন্ন ব্যাংককের কাছে তার অ্যাকাউন্টের সর্বশেষ তথ্য জানতে চেয়েছেন তারা।   জানা গেছে, সম্প্রতি এনবিআরের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সেল (সিআইসি) থেকে ব্যাংকগুলোকে আশরাফুলের ...
(মূল লেখা)
ঝুলে থাকল আশরাফুলের ভাগ্য
বাংলা নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম
৩০ জুন, ২০১৩
ঢাকা: প্রত্যাশা ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের বার্ষিক সভা শেষেই বিপিএলে ম্যাচ পাতানো নিয়ে আকসুর (দুর্নীতিবিরোধী ও নিরাপত্তা ইউনিট) রিপোর্ট হাতে বুঝে পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান। লন্ডনে সভা শেষ হলেও রিপোর্ট দিতে আরও দেরি হবে জানিয়েছে আকসু। সম্ভবত আগস্টের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলকে তাই থাকতে হচ্ছে মাঠের বাইরেই। জুলাইয়ে নির্ধারিত ঢাকা প্রিমিয়ার বিভাগীয় ক্রিকেট লিগে খেলা হচ্ছে না জাতীয় দলের অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের। নাজমুল জানালেন,‘তারা রিপোর্ট সম্পূর্ণ করতে পারেনি। বাংলাদেশের বাইরেও কিছু সাক্ষাৎকার নেওয়া বাকি আছে। তারা আরও সময় চেয়ে নিয়েছে। তাদের সঙ্গে কথা বলে যতটুকু বুঝেছি, আমার মনে হয় সম্ভবত আগস্টের প্রথম সপ্তাহে রিপোর্ট হাতে পাব।’ রিপোর্ট পাওয়ার উপর নির্ভর করছিল আসন্ন ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্টে আশরাফুলের খেলা। তাই রিপোর্টের মতোই ঝুলে থাকল তারও ভাগ্য,‘আশরাফুল ইতোমধ্যে সাময়িকভাবে বহিষ্কৃত, আর রিপোর্টও এখনও পাইনি। আমরা জানি না কোন ধরনের সিদ্ধান্ত তার বিরুদ্ধে নেওয়া উচিত। কিন্তু টুর্নামেন্টে সে খেলতে পারবে ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের জন্য কষ্ট হচ্ছে জার্গেনসেনের
ইনকিলাব
১২ জুন, ২০১৩
জিম্বাবুয়ে সফর শেষে ছুটি নিয়ে যখন অস্ট্রেলিয়া অবস্থান করছিলেন জার্গেনসেন, তখন আকসুর জেরার মুখে স্পট ফিক্সিংয়ে নিজের জড়িত হবার কথা স্বীকার করেছেন আশরাফুল। বিপিএল’র ফিক্সিং তদন্ত করতে এসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্পট ফিক্সিংয়ে নিজের জড়িয়ে পড়ার কথা আকসুকে স্বীকার করেছেন আশরাফুল, ওই নিন্দনীয় ঘটনা শুনে প্রচ- কষ্ট পেয়েছেন জার্গেনসেন। ২০১২ সালে শ্রীলংকার ক্যান্ডিতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের হেড কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন জার্গেনসেন, আইসিসি’র ওই মেগা আসরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে স্পট ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব জুয়াড়ীর কাছ থেকে লুফে নিয়েছেন আশরাফুল! এমন ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল-ভক্তদের মানববন্ধন পণ্ড
ইত্তেফাক
১০ জুন, ২০১৩
সকাল দশটা বাজতেই ছোট ছোট ফেস্টুন ও ব্যানার নিয়ে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের দক্ষিণ দিকে কিছু লোক জড়ো হতে থাকে। নিজেদের 'আশরাফুল-ভক্ত' নামে দাবি করেছে। ফেস্টুনেও তারা আশরাফুলের সম্বন্ধে বিভিন্ন শ্লোগান লিখে জড়ো হয়। তবে পুলিশের বাধায় শেষ পর্যন্ত তাদের কর্মসূচি পণ্ড হয়। গতকাল রবিবার সকাল থেকে বিভিন্ন জায়গা থেকে ফেস্টুন নিয়ে আশরাফুল-ভক্তরা ছুটে আসে মিরপুর স্টেডিয়ামে। স্পট ফিক্সিংয়ের সাথে আশরাফুল জড়িত এটা কোনভাবেই মানতে পারছেন না তার ভক্তরা। তাই প্রতিবাদ জানাতে ছুটে এসেছিলেন মিরপুরে। কিন্তু এই কর্মসূচী ব্যর্থ ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের জন্য মানববন্ধন
কালের কন্ঠ
৯ জুন, ২০১৩
কিছু দিন ধরেই মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের বাইরে টানানো ছোট্ট একটি ব্যানার দৃষ্টি কাড়ছে অনেকেরই। যাতে ইন্ডিয়া টিভির স্টিং অপারেশনে অর্থের বিনিময়ে যেকোনো সিদ্ধান্ত দিতে রাজি হয়ে ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ আম্পায়ার নাদির শাহর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে। আজও একটি দাবি নিয়ে কিছু ক্রিকেটভক্ত স্টেডিয়ামের সামনে হাজির হচ্ছে। তবে তারা সবাই আসলে মোহাম্মদ আশরাফুলের ভক্ত। বিপিএলে ম্যাচ পাতানোয় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ক্রিকেট থেকে আপাতত নিষিদ্ধ এ ব্যাটসম্যানের জন্য মানববন্ধন করতে যাচ্ছে তার ভক্তরা। আজ সকালে মিরপুর স্টেডিয়ামের সামনে তাদের মানববন্ধন শুরু হওয়ার কথা সকাল ১০টায়। ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলকে গ্ল্যাডিয়েটর্সের হুমকি!
যায়যায় দিন
০৮ জুন, ২০১৩
ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স কর্তৃপক্ষ ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ সেই প্রথম দিন থেকেই অস্বীকার করে আসছে। এমনকি আইসিসির দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিটের (আকসু) কাছে মোহাম্মদ আশরাফুল স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পরও আগের অবস্থান থেকে একটুও সরে আসেননি গ্ল্যাডিয়েটর্সের মালিক সেলিম চৌধুরী। গতকাল আরেকবার নিজেদের নির্দোষ দাবি করে তিনি বলেন, 'প্রমাণ ছাড়া আকসুকে অসত্য তথ্য দিয়ে থাকলে আশরাফুলের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন তারা।' যদিও গত বুধবার গ্ল্যাডিয়েটর্সের চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরীকে আকসু জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে আকসু তদন্ত দলের মুখোমুখি হয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার দেশে ফিরে সেলিম চৌধুরী বলেন, 'আকসুর তদন্তকারী কর্মকর্তাদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তারা যা যা জানতে চেয়েছেন, আমি বলেছি। আমি এখনো জোর দিয়ে বলতে পারি, ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স কোনো অন্যায় করেনি। তাছাড়া কোনোরকম অন্যায়ের প্রশ্রয়ও দেয়নি। গ্ল্যাডিয়েটর্স ফিক্সিংয়ে সম্পৃক্ত ছিল- কেউ এমন প্রমাণ দিতে পারলে যে শাস্তি দেবে তা মাথা পেতে নেব।' এদিকে, গত ২ জুন ঢাকার রেডিসন হোটেলে আকসু গ্ল্যাডিয়েটর্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শিহাব চৌধুরীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল। তাই শেষ ব্যক্তি ...
(মূল লেখা)
আরও কিছু বলার আছে
মানবজমিন
০৬ জুন, ২০১৩
ক্রিকেট তাকে পরিচয় করিয়েছে বিশ্ব দরবারে। ১২ বছর ধরে ক্রিকেট তার জীবনের অংশ। সে কিভাবে ক্রিকেট ছাড়বে! সে কি হারিয়ে যাবে ক্রিকেট থেকে? না, আশরাফুল এক বাক্যে মানবজমিনকে জানিয়ে দিলেন, ‘আমি ক্রিকেটের পাশেই থাকবো। আমি আমার অন্যায় স্বীকার করে নিয়েছি ক্রিকেটের স্বার্থে, ক্রিকেটের উপকারের জন্য। তাই ক্রিকেট থেকে আমি দূরে যাবো না।’ বলা চলে মোহাম্মদ আশরাফুল বাংলাদেশের দু’টি অধ্যায়ের অংশ। একটি তার ব্যাট হাতে আলোকিত অধ্যায় আরেকটি ফিক্সিংয়ের অন্ধকার জগৎ। একটি অধ্যায় তাকে আর বাংলাদেশকে করেছে আলোকিত। আরেকটি তাকে আর বাংলাদেশকে ঠেলে দিয়েছে অন্ধকারে। অন্যায় মেনে নিলেও শাস্তি তার হবে। হয়তো আজীবন ক্রিকেট খেলা থেকেও নিষিদ্ধ হতে পারেন। তাই তিনি বলেন, ‘যদি  আমার ক্রিকেট খেলার সুযোগ থাকে খেলবো। আর সুযোগ না থাকলে তো খেলতে পারবো না। তবে আমি অন্য যে কোনভাবে এই ক্রিকেটের পাশেই থাকবো, থাকতে চাই।’ গতকাল টক অব দ্য কান্ট্রি ‘মোহাম্মদ আশরাফুল’। তার  প্রতি মানুষের ভালবাসাটা এমনই যে, আশরাফুলের ক্ষমা প্রার্থনার পর অনেকেই তাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। ...
(মূল লেখা)
বিশ্ব গণমাধ্যমে আশরাফুল!
ইত্তেফাক
০৬ জুন, ২০১৩
একজন খেলোয়াড়ের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি কি? ব্যাপারটা অবশ্যই আপেক্ষিক। প্রাপ্তিকে একেকজনে একেক ভাবে দেখবেন এটাই স্বাভাবিক। তবে, সারা বিশ্বের গণমাধ্যম যদি একজন খেলোয়াড়কে নিয়ে কথা বলে তাহলে সেটা প্রাপ্তি হিসেবেই দেখা হয়। গতকাল বিশ্বের জনপ্রিয় সব গণমাধ্যম তো বটেই ছোটখাটো পত্রিকার অনেকটা জুড়েই ছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। তারপরেও এদিনটিকে মনে রাখতে চাইবেন না আশরাফুল। ফিক্সিং কেলেংকারির সাথে জড়িয়ে গত মঙ্গলবার সব ধরনের ক্রিকেট থেকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এই ক্রিকেটারকে। এরপরই দেশ ছাপিয়ে বিশ্বের গণমাধ্যমগুলোর খেলার পাতায় প্রথম দিকেই ছিলেন ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল লজ্জিত ও ক্ষমাপ্রার্থী
যায়যায় দিন
০৫ জুন, ২০১৩
ঢাকার বনশ্রীতে তার বাসায় সাংবাদিকদের ভিড় নতুন কিছু নয়। জাতীয় দলের অনেক উজ্জ্বল মুহূর্ত জন্ম দেয়ার পর সেই বাড়িতে ছুটে গেছেন সাংবাদিকরা, জেনেছেন তার গর্বিত মা-বাবার প্রতিক্রিয়া। কখনো তিনি নিজেও কথা বলেছেন। কিন্তু মঙ্গলবার সম্পূর্ণ ভিন্ন এক মোহাম্মদ আশরাফুল হাজির হলেন সাংবাদিকদের সামনে। কয়েকদিনের না কামানো দাড়িগোঁফের জঙ্গল। তারই আড়াল থেকে স্পষ্ট ভেসে আসছে থমথমে মুখটা। ভেতরে ভেতরে যে ঝড় বয়ে যাচ্ছে, সেটা তাকে দেখেই স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল। কিছুদিন ধরেই বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যমে আলোচনার শীর্ষে তিনি। আইসিসির দুর্নীতি দমন বিভাগের (আকসু) কাছে দেয়া তার স্বীকারোক্তি ক্রীড়াঙ্গনের চৌহদ্দি পেরিয়ে সারাদেশে সাড়া ফেলেছে। কিন্তু নিজের মুখে প্রকাশ্যে আশরাফুল কিছুই বলছিলেন না। গতকাল প্রথম মুখ খুললেন তিনি। এবং শুরুতে স্বীকার করে নিলেন সব অপরাধ। ক্রিকেটের স্বার্থে এবং বিবেকের দংশনে আকসুর কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন জানিয়ে আশরাফুল দেশবাসীর কাছে ক্ষমাও চান। নিজের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এই প্রথম এমন অবস্থার মুখোমুখি হলেন জানিয়ে আশরাফুল বলেন, '১২ বছরের ক্যারিয়ারে এই প্রথম আকসু আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। ১২ বছর ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল আপাতত নিষিদ্ধ
বাংলাদেশ প্রতিদিন
০৪ জুন, ২০১৩
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আজ রাজধানীর মিরপুরে বিসিবি'র কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন আইসিসি দুর্নীতি দমন তদন্ত শাখার (আকসুর) চূড়ান্ত প্রতিবেদন আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে পাওয়া যাবে। একই সঙ্গে, প্রতিবেদন পাওয়ার আগ পর্যন্ত জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুলকে সব ধরনের খেলা থেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। এর আগে বোর্ড সদস্যদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেন বোর্ড সভাপতি। ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল ইংল্যান্ডে
প্রথম আলো
২৯ আগষ্ট, ২০১৩
মোহাম্মদ আশরাফুল কোথায়— কেউ জানে না। ঢাকায় তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলও জানাতে পারেনি তাঁর অবস্থান। তবে কাল একটি সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে আশরাফুল এখন ইংল্যান্ডে। ইংল্যান্ড থেকে আশরাফুলের এক ঘনিষ্ঠ বন্ধুর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক বর্তমানে লন্ডন অথবা নটিংহ্যামশায়ারে আছেন। আশরাফুল কেন ইংল্যান্ডে গেছেন সেটি তিনি বলতে পারেননি। তবে ধারণা করা হচ্ছে ফিক্সিংয়ের ব্যাপারে বিদেশি আইনজীবী নিয়োগ করতেই তাঁর এই ইংল্যান্ড সফর। আজকালের মধ্যেই নাকি আশরাফুলের দেশে ফেরার কথা। গত পরশু বিপিএল ফিক্সিংয়ের অভিযোগের বিরুদ্ধে আপিল করার শেষ দিন গেলেও আশরাফুলের পক্ষ থেকে কোনো আপিল করা হয়নি বলে জানিয়েছিল বিসিবি। তবে আশরাফুল সরাসরি আকসুর কাছে আপিল করেছেন কি না, সেটি নিশ্চিত করেনি তারা। অবশ্য আগেই দোষ স্বীকার করে নেওয়ায় আশরাফুলের নতুন করে আপিল করার কিছু আছে কি না, সেটা নিয়ে প্রশ্ন আছে। তবে তিনি আপিল করতে পারেন ট্রাইব্যুনাল শাস্তি ঘোষণার পর সে শাস্তি কমানোর জন্য। বিদেশি আইনজীবী নিয়োগের চেষ্টা হয়তো সে কারণেই। ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলকে ১০ বছর শাস্তির সুপারিশ
সমকাল
১৮ আগষ্ট, ২০১৩
বড় একটা ঝড় বয়ে যাওয়ার পর চারপাশটা যেমন সব শান্ত হয়ে যায়, ঠিক তেমনই বিপিএল ফিক্সিং নিয়ে আকসু তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়ার পর বুধবার বিসিবি কার্যালয়ে ছিল সুনসান নীরবতা। ক্রিকেটের পবিত্রতা নষ্ট করেছেন কারা, তা এরই মধ্যে জেনে গেছেন সবাই। আশরাফুলকে ১০ বছর নিষেধাজ্ঞার শাস্তির সুপারিশও নাকি করে গেছে আকসু।আশরাফুলকে ১০ বছর শাস্তির সুপারিশ মঙ্গলবার আকসু কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করার পর মোহাম্মদ আশরাফুল। ফাইল ছবি তবে এখন গুঞ্জন আর কানাঘুষার গোপনীয়তা ঝেড়ে সবকিছুই এগোবে আইনের সূক্ষ্ম ও সর্তক পদক্ষেপে, ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের ব্যাংক হিসাব জব্দ
বিডি নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম
০৪ জুলাই, ২০১৩
এনবিআরের কর ও রাজস্ব বিভাগের সদস্য সৈয়দ আমিনুল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক এরই মধ্যে সকল বাণিজ্যিক ব্যাংককে আশরাফুলের ব্যাংক হিসাবের গত দুই বছরের সকল লেনদেনের বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে বলেছে। তদন্তে কোনো ধরনের অসঙ্গতিপূর্ণ লেনদেন পাওয়া গেলে জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়কের বিরুদ্ধে রাজস্ব ফাঁকি ও অবৈধ লেনদেনের দায়ে মামলা করা হবে।   আমিনুল করিম বলেন, “আশরাফুলের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোর সঙ্গে কর ফাঁকির বিষয়টিও আসতে পারে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। আয়কর অধ্যাদেশের বিশেষ ধারা অনুসারে এ ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় জার্গেনসেন
বিডি নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম
১২ জুন, ২০১৩
মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের জার্গেনসেন বলেন, “তদন্তের ফলাফল সম্পর্কে আমি জানি না। তবে সে (আশরাফুল) নিষিদ্ধ হলে আমাদের ব্যাটিংয়ের অনেক বড় ক্ষতি হবে। সে ভালো ব্যাট করছিল। আমরা তার অভাব অনুভব করবো।” “বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে আমি বিশেষ কিছু জানি না। তাই এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে চাই না। শুধু বলবো যে এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এবং প্রত্যেকের জন্যই পরিস্থিতিটা ভীষণ কঠিন। সবার মধ্যে কিছুটা হলেও অবিশ্বাস কাজ করছে।” আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ও নিরাপত্তা ইউনিটের (আকসু) কাছে ম্যাচ পাতানোয় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করায় আশরাফুলকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে সাময়িকভা্বে নিষিদ্ধ করেছে বিসিবি। আকসুর তদন্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে তারা। গত ১৪ মে জিম্বাবুয়ে সফর শেষে দেশে ফেরার পর ক্রিকেটারদের হাতে এখন অখণ্ড অবসর। নিউজিল্যান্ড দল আসবে অক্টোবরে। তার আগে ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে চান জার্গেনসেন। এই অস্ট্রেলীয় কোচ বলেন, “আমরা ১৩ তারিখ থেকে শুরু হতে যাওয়া ক্যাম্পের দিকে মনযোগ দিতে ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলকে ক্ষমা করেননি সিডন্স
সমকাল
১২ জুন, ২০১৩
এতদিন শুধু কানাঘুষাই ছিল। ক্রিকেটের অন্ধকার জগতের রিমোট কন্ট্রোল নাকি আন্ডারওয়ার্ল্ড ডনদের হাতেই থাকে। আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ে শ্রীশান্তের তদন্ত করতে গিয়েও দিলি্ল পুলিশ দুবাইয়ের ডন দাউদ ইব্রাহিম ও ছোটা শাকিলের নাম খুঁজে পেয়েছে। রেকর্ড করা হয়েছে তাদের কথোপকথন। সে নেটওয়ার্ক যে বাংলাদেশেও ছড়িয়ে গেছে, সেটা অন্তত এতদিন কেউ মুখ খুলে বলার সাহস পাননি।আশরাফুলকে ক্ষমা করেননি সিডন্স বৃহস্পতিবার যা বলেই ফেললেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ জেমি সিডন্স। নিউজিল্যান্ডের এক দৈনিকে বোমা ফাটালেন সিডন্স এ-ই বলে যে, আন্ডারওয়ার্ল্ডের জুয়াড়ি চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল ভক্তদের মানববন্ধন ভেঙে দিল পুলিশ
ইত্তেফাক
৯ জুন, ২০১৩
বিশ্বকে তাক লাগিয়ে নিজের দায় স্বীকার করে নেয়া ক্রিকেটার আশরাফুলের ভক্তদের মানববন্ধন ভেঙে দিয়েছে পুলিশ। আজ রবিবার সকাল ১০টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে আশরাফুল ভক্তরা। বিপুল সংখ্যক পুলিশ সেখানে অবস্থা নিয়ে তাদের দাঁড়াতেই দেয়নি। ভক্তদের দাবি 'আশরাফুলকে ক্ষমা করে দাও'; 'আশরাফুলকে ফাঁদে ফেলা হয়েছে' আশরাফুলকে কম শাস্তি দাও। ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল এখন স্বাভাবিক
‌নয়া দিগন্ত
০৮ জুন, ২০১৩
আশরাফুল তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে যত অপকর্ম করেছেন তার অংশবিশেষ বলে এখন অনেকটাই নির্ভার। অপরাধের বোঝা মাথা থেকে নেমে যাওয়ায় সেই চির চঞ্চল আশরাফুলকেই যেন আবার দেখা যাচ্ছে। ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত ছিলেন এই ক্রিকেটার। অর্থের লোভে অনেক ম্যাচেই তিনি কলঙ্কজনক অধ্যায়ের জন্ম দিয়েছেন। এরপর নিজের ক্যারিয়ারের অন্ধকার যুগের কথা বলার পর জাতির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। এখন তিনি স্বস্তি পাচ্ছেন। রাতে আর বিনিদ্র রজনী কাটাতে হচ্ছে না। এমনকি ক্রিকেট সতীর্থদের সাথে তার যোগাযোগ বেড়েছে। কেউ তার সাথে কথা বলতে চাইলে বিমুখ হচ্ছেন না। এমনকি তার কলঙ্কের কথা জানতে চাইলে তিনি বিরক্ত হচ্ছেন না। আশরাফুল জানান যে নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করার পর বেশ কয়েকটি দিন তার খুব খারাপ কেটেছে। এরপর মিডিয়ার মাধ্যমে ক্ষমা চাওয়ার পর নিজেকে হালকা লাগছে। এখন নিজের জীবন গোছাতে চাই। ক্রিকেট কিন্তু আশরাফুলকে কম কিছু দেয়নি। কিন্তু ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত হয়ে তিনি তার গর্বের ক্রিকেট ক্যারিয়ারকে অসম্মান করেছেন। তবে নিজের দোষ স্বীকার করার অনেকেই আশরাফুলের বাড়ি ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল কি পার পাবেন?
যায়যায় দিন
০৮ জুন, ২০১৩
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ২০১২ সালের ১ অক্টোবরে খেলোয়াড় এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দুর্নীতি রুখতে নতুন আইন করেছিল। কিন্তু ৮ মাসের মাথায়ই এই আইনকে অকার্যকর বলে মনে করছেন ক্রিকেটসংশ্লিষ্ট এবং আইন বিশ্লেষকরা। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় আসরে মোহাম্মদ আশরাফুল স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার ব্যাপারে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন । তবে এটাকে ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে 'ক্রিমিনাল অফেন্স' আমলে নেয়া হবে কিনা, সেটা নিয়েও রয়েছে যথেষ্ট সংশয়। কারণ খেলায়ধুলায় স্পট ফিক্সিং বা ম্যাচ গড়াপেটার বিষয়ে দেশে কোনো কার্যকর আইন নেই। ফলে আইনি ফাঁক ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের কাজে হতাশ মাশরাফি
সংবাদ
০৬ জুন, ২০১৩
আশরাফুলের ম্যাচ পাতানো যেন কিছুতেই বিশ্বাস হচ্ছে না তার দুই সতীর্থ ক্রিকেটার মাশরাফি ও মোহাম্মদ শরিফের। এতদিন এ নিয়ে ক্রিকেটারদের কেউ মুখ না খুললেও মঙ্গলবার বিসিবি ও আকসুর প্রাথমিক তদন্ত রিপোর্টের পর কথা বলতে শুরু করেছেন ক্রিকেটাররা। আর প্রত্যেকের কথায় বেরিয়ে আসছে হতাশা। বিশেষ করে মাশরাফি এবং শরিফের অনুভূতিটা যেন একটু বেশিই। কারণ এ দুইজন একদিকে যেমন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের সতীর্থ ছিলেন তেমিন ক্রিকেট ক্যারিয়ারটাও তাদের প্রায় একই সময় শুরু। তাই আশরাফুল সম্পর্কে অনেক বেশি জানা তাদের। সে বিশ্বাস থেকেই হয়তো আশরাফুলের অন্ধকার ক্রিকেটে প্রবেশ করাটা বিশ্বাস হচ্ছে না তাদের। এ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে গতকাল মিরপুর ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মাশরাফি বললেন, 'প্রায় একই সময়ে আমরা ক্যারিয়ার শুরু করি। আশরাফুলের এক সিরিজ পরে আমি দলে আসি। পরিবারের চেয়ে ওর সঙ্গেই বেশি সময় কাটিয়েছি। আমার কেমন লাগছে তা বলে বোঝাতে পারব না। আশরাফুলের জন্য আমার মনে বিশেষ একটি জায়গা রয়েছে। ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা
মানবজমিন
০৬ জুন, ২০১৩
ফিক্সিংয়ের অন্ধকার জগতে যারা একবার প্রবেশ করেন তারা আর বের হতে পারেন না। কিংবা তাদের বের হতে দেয়া হয় না। আশরাফুলও তেমন একটি চক্রের ফাঁদে পড়েছিলেন। আর তাই ধারণা করা হচ্ছে, সে কারণেই তিনি নিজের সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়েছেন দীর্ঘদিন, চেষ্টা করেছেন এই চক্র থেকে বের হতে। আর সুযোগ আসার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি আকসুর কাছে সব কিছুই স্বীকার করে নেন। আকসুর সঙ্গে আশরাফুলের খুব কাছের একজন মানুষকে তিনি ফোনে জানিয়েছিলেন ‘আমি একটা অন্যায় করে ফেলেছি। আপনি বাসায় আসেন আমি তা বলবো।’ পরে আশরাফুল তাকে সব কিছু খুলে বলেন। কিভাবে তার এই অন্ধকার জগতে প্রবেশ! আশরাফুলের সেই আপনজন তার সব কথা শুনেছেন। আর তার ধারণা আশরাফুল বড় কোন ট্র্যাপে পড়েই এমনটা করেছেন। তিনি বলেন, ‘আশরাফুলের কথা শুনে আমার মনে হয়েছে ও কোন ট্র্যাপে পড়েই এসব করেছে। তবে এখনই আমি কিছু বলতে চাই না, রিপোর্ট আসুক তবে আমার মনে হয় এই ঘটনার আরও বড় তদন্ত দরকার।’ অন্যদিকে আশরাফুলের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত তার ...
(মূল লেখা)
সাময়িক নিষিদ্ধ আশরাফুল
যায়যায় দিন
০৫ জুন, ২০১৩
বিপিএলে ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে মোহাম্মদ আশরাফুলকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। মঙ্গলবার দুপুরে মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই সাময়িক নিষেধাজ্ঞার কথা জানান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। এর আগে বোর্ড সদস্যদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেন বোর্ড সভাপতি। এর আগে আরেক দফা তদন্ত শেষে ঢাকা ছাড়েন আইসিসি দুর্নীতি দমন বিভাগের (আকসু) দুই কর্মকর্তা। যাওয়ার আগে তদন্তের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে বিসিবি সভাপতিকে অবহিত করেন তারা। এ নিয়ে অবশ্য মুখ খুলছিলেন না বিসিবির কেউই। নাজমুল হাসানও আকসুর তদন্ত প্রতিবেদন নিয়ে ...
(মূল লেখা)
ক্ষমা চাইলেন আশরাফুল
সমকাল
০৪ জুন, ২০১৩
ম্যাচ পাতানো নিয়ে এ পর্যন্ত ‘যা হয়েছে’ সেজন্য জাতির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।   মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীতে তার নিজ বাসায় সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “ম্যাচ পাতানোর বিষয়ে আকসুকে সব বলেছি।”   আকসু তাকে এ বিষয়ে অন্য কারো সঙ্গে কথা বলতে নিষেধ করেছে বলে আবারও উল্লেখ করেন আশরাফুল।   তবে উপস্থিত সাংবাদিকদের ‘পীড়াপীড়িতে’ ম্যাচ পাতানো নিয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করেন তিনি। এর আগে সমকালসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে আকসুর নিষেধাজ্ঞার কথা জানিয়েছিলেন তিনি।   মঙ্গলবার দুপুরে বিসিবির সংবাদ সম্মেলনের পর আশরাফুলের প্রতিক্রিয়া জানতে ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের শাস্তির পক্ষে-বিপক্ষে
বাংলাদেশ প্রতিদিন
৯ জুন, ২০১৩
আশরাফুল নিজেই মেনে নিয়েছেন শাস্তি। শুধু তার প্রশ্ন কতদিন হবে এ শাস্তি-আজীবন না অল্প কিছু দিন? বিপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে সব ধরনের ক্রিকেটে সাময়িক নিষিদ্ধ হয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। এ ক্রিকেটারকে যেন আজীবন কিংবা দীর্ঘ সময়ের জন্য নিষিদ্ধ করা না হয়, সে জন্য তার ফেসবুক ফ্যান ক্লাব মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজ একটি মানববন্ধন করবে। অথচ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বেশ কয়েকজন পরিচালক চাইছেন আশরাফুলের কঠোর শাস্তি। বিসিবি সভাপতি বেশ কয়েক দিন আগে মিডিয়ার মুখোমুখিতে ম্যাচ ফিক্সিংয়ে ...
(মূল লেখা)
শুরুতেই সাজঘরে আশরাফুল, জহুরুল
বিডি নিউজ ২৪
৮ মে, ২০১৩
এক প্রান্তে তামিম ইকবাল ১০ ও অন্য প্রান্তে মুশফিকুর রহিম ২ রানে ব্যাট করছেন। সাজঘরে ফিরে গেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল (৫) ও জহুরুল ইসলাম (০)। বুধবার বুলাওয়ায়োর কুইন্স স্পোর্টস ক্লাব মাঠে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশ দলে একটি পরিবর্তন। মমিনুল হকের বদলে দলে ফিরেছেন জহুরুল ইসলাম। জিম্বাবুয়ে দলেও একটি পরিবর্তন। শিঙ্গিরাই মাসাকাদজার বদলে দলে এসেছেন ব্রায়ান ভিটোরি। দুই ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা। ...
(মূল লেখা)
খোলা চোখে
এ তু, আশরাফুল?
প্রথম আলো
১৪ জুন, ২০১৩
বাইশ শ বছর আগের এই গল্পটি আমরা শুনেছি শেক্সপিয়ারের কাছ থেকে। রোমান সম্রাট জুলিয়াস সিজার তখন সুবিশাল রোম সাম্রাজ্যের রাজাধিরাজ। সারা পৃথিবী তাঁর নামে কাঁপে। সমরক্ষেত্রে তাঁর সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে দেশের আইন পরিষদ সিনেট তাঁকে ‘আজীবনের জন্য ডিক্টেটর’ খেতাব দিয়েছে। সে জন্য তাঁকে কিছু কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে বটে, কিন্তু অসন্তুষ্ট কোনো কোনো সিনেটর এ নিয়ে পেছনে পেছনে ষড়যন্ত্র পাকাচ্ছেন, সে কথা ঘুণাক্ষরেও ভাবেননি সিজার। বিশেষত, তিনি এ কথা একদমই ভাবেননি তাঁর ঘনিষ্ঠ সখা মার্কাস ব্রুটাস কোনো ষড়যন্ত্রে অংশ নিতে ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল নিষিদ্ধ হলে জাতীয় দলের জন্য বড় ক্ষতি
নয়াদিগন্ত
১২ জুন, ২০১৩
ফিক্সিং ইস্যুতে কূটনৈতিক উত্তরের আশ্রয় নিলেন জাতীয় দলের কোচ শেন জার্গেনসেন। গতকাল বিসিবি কার্যালয়ে ক্রিকেট অপারেশন্সের সাথে সভার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, আসলে এ বিষয়ে অনেক কিছুই আমার জানা নেই। এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করতেও চাচ্ছি না। সবার জন্যই খুব কঠিন মুহূর্ত। তারা (আকসু) তদন্ত শেষ করুক, এটাই চাই।’ মোহাম্মদ আশরাফুল শ্রীলঙ্কা সফরের প্রথম টেস্টে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে ১৯০ করেছিলেন। দলের জন্য অবশ্যই অপরিহার্য এ ক্রিকেটার। কিন্তু দায়টা যখন নিজেই স্বীকার করেছেন তখন আর কী করা। অস্ট্রেলিয়ার এ কোচ বলেন, ‘সে যদি নিষিদ্ধ হয়, তাহলে আমাদের ব্যাটিং অর্ডারের জন্য বড় তি হবে। তদন্তে কী পাওয়া গেছে সেটা আমি জানি না। সে ব্যাটিং ভালো করছিল, নিষিদ্ধ হলে আমরা তাকে মিস করব। এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে চাচ্ছি না।’ তিনি বলেন, ‘সামনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেট আছে। আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট শেষে দীর্ঘ সময় পর একটা অবসর পেয়েছি। আসন্ন সিরিজের দিকেই আমাদের মনোযোগ থাকবে। আশা করি কঠিন পরিশ্রম দিয়ে আমরা ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল ও অন্ধকার রহস্যে ঘেরা সত্য
বিডি নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম
০৮ জুন, ২০১৩
ঢাকা: আশরাফুলের উপর রাগ হওয়ার কথা, চরম ঘৃণা হওয়ার কথা। কিন্তু তা হচ্ছে না। বরং উল্টো তাঁর প্রতি কেমন যেন ভালোবাসা তৈরি হয়েছে। আশরাফুল নিজেই স্পট ফিক্সিংয়ের কথা স্বীকার করেছেন। কেন জানি মনে হয় সবই এক অন্ধকার রহস্যে ঘেরা। আশরাফুল বাধ্য হয়েই হয়তো চাপিয়ে দেয়া স্বীকারোক্তি দিয়েছেন! আসলে কি হয়েছিলো সেই সত্য হয়তো জানেন আশরাফুল। হয়তোবা প্রকৃত সত্য জানেনই না। আচমকা পরিস্থিতির স্বীকার হয়ে গেলেন। এখন বোঝার চেষ্টা করছেন আসলে কি ঘটে চলেছে। তা চরম মূল্য দিয়ে। আমার এই ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল নায়ক থেকে খলনায়ক
সমকাল
০৬ জুন, ২০১৩
তারকাদের উত্থান-পতনের এমন ঘটনা বিরল নয়। 'ডোপ' করার দায়ে ফুটবল-ঈশ্বর পর্যন্ত 'নিন্দিত নরকে' নিক্ষিপ্ত হয়েছিলেন। দিয়েগো ম্যারাডোনার সঙ্গে অবশ্য তুলনা চলে না মোহাম্মদ আশরাফুলের। একজন নেশার কাছে আত্মসমর্পণ করেছিলেন। নিজের সঙ্গে প্রতারণা করলেও ফুটবলের সঙ্গে প্রতারণা করেননি ফুটবল-ঈশ্বর। আর অন্যজন আশরাফুল, ক্রিকেটের সঙ্গে প্রতারণা করেই কালিমালিপ্ত হলেন। এমনিতেই ম্যারাডোনার সঙ্গে আশরাফুলের তুলনা অবান্তর। একজন বিশ্বতারকা। অন্যজন বাংলাদেশের ক্রিকেট আইকন। তবু ছোট পরিসরের তারকাও তো তারকাই। তাই পতনের সঙ্গে মিল খুঁজতে গিয়ে ম্যারাডোনার প্রসঙ্গই এসে গেল।     ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক ...
(মূল লেখা)
হায় আশরাফুল!
ইত্তেফাক
০৫ জুন, ২০১৩
হাবিবুল বাশার সুমন ব্যাটসম্যান-অধিনায়ক হিসেবে যেমন খ্যাতনামা ছিলেন; রসিক মানুষ হিসেবেও তার পরিচিতি নিতান্ত কম নয়। যেকোনো বিষয়েই ছোট ছোট মজার মন্তব্য করে হাসতে ও হাসাতে তার জুড়ি মেলা ভার। কিন্তু সেই হাবিবুল যেন হাসতে ভুলে গেলেন; ভুলে গেলেন কথা বলতেও। ফোন পেয়ে অনেকটা সময় চুপ করে থেকে শুধু একটা শব্দ উচ্চারণ করলেন—আশরাফুল! পুরো বাংলাদেশের এখন এই হাবিবুল বাশারের মতো অবস্থা। পুরো বাংলাদেশই পারলে চিত্কার করে বলে—আশরাফুল, দাউ টু; তুমিও আশরাফুল! এখন বাংলাদেশ অন্তত ওয়ানডে ক্রিকেটে বেশ ভালো একটা ...
(মূল লেখা)
দুঃখিত আশরাফুল
মানবজমিন
০৫ জুন, ২০১৩
ক্রিকেট কখনও কখনও জীবনের চেয়েও বর্ণময়। উত্থান-পতন, দুঃখ, শোক কি নেই ক্রিকেটে। আনন্দ আর বেদনার অশ্রু ক্রিকেট, ক্রিকেটার আর ক্রিকেট দর্শকের নিত্যসঙ্গী। তবুও জীবনে যেমন কিছু নির্মম সত্য মানা যায় না ক্রিকেটেও তেমনি। নিঃসন্দেহে মোহাম্মদ আশরাফুল বাংলাদেশের ক্রিকেটের প্রথম সুপার স্টার। অভিষেক টেস্টে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন তিনি অন্যরকম। বাংলাদেশের গড়পড়তা ক্রিকেটারের চেয়ে আলাদা। সাকিব-তামিম যুগ শুরুর আগে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সব ক’টি বড় জয়ের সঙ্গেই জড়িয়ে ছিল তার নাম। কখনও কখনও প্রতিভার অপচয়ে হয়তো আমরা দুঃখ ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল সাসপেন্ড
জনকন্ঠ
০৫ জুন, ২০১৩
মিথুন আশরাফ ॥ সেই ১৯৯৪-৯৫ সালে শেন ওয়ার্ন ও মার্ক ওয়াহ’র ম্যাচ পাতানোয় জড়িত থাকা দিয়ে শুরু। সেই থেকে ম্যাচ পাতানোর বিষাক্ত থাবা, কলঙ্ক কোনভাবেই ক্রিকেট থেকে দূর করা যাচ্ছে না। ভারতে আইপিএল শুরু হওয়ার পর যেন সেই কলঙ্ক ক্রিকেটবিশ্বকে তাতিয়ে দিচ্ছে। সর্বশেষ এই থাবায় আইপিএলের আদলে দেশে করা বিপিএল খেলে ম্যাচ পাতানোর দায় নিয়ে সাময়িক নিষিদ্ধ হলেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলও। বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে জড়িত থাকায় তাঁকে এ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। দিন দিন ভারতের মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন, অজয় জাদেজা, অজয় শর্মা, মনোজ প্রভাকর, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রয়াত হ্যানসি ক্রনিয়ে, হার্চেল গিবস, ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারলন স্যামুয়েলস, পাকিস্তানের সেলিম মালিক, ওয়াসিম আকরাম, মুশতাক আহমেদ, সালমান বাট, মোহাম্মদ আসিফ, মোহাম্মদ আমিরের গায়ে সেই কলঙ্ক লাগে। গত মাসে আইপিএলে ম্যাচ পাতানো কা- নিয়ে তোলপাড় লেগে যায় ক্রিকেটবিশ্বে। ভারতীয় ক্রিকেটার শান্তাকুমারন শ্রীশান্ত, অজিত চান্দিলা ও অঙ্কিত চাবনকে গ্রেফতারও করে দিল্লী পুলিশ। এরপর থেকে তোলপাড় চলছেই। আইপিএল যেখানে ...
(মূল লেখা)
গুরুকে পাশে পাচ্ছেন আশরাফুল
প্রথম আলো
০৫ জুন, ২০১৩
নিজের দুঃসময়ে সব সময়ই গুরুর শরণ নিয়েছেন। ব্যাট হাসছে না, মোহাম্মদ আশরাফুল ছুটে গেছেন তাঁর কাছে। কোনো একটা টেকনিকে সমস্যা হচ্ছে, আশরাফুল আবার তাঁর দারস্থ। এখন যখন জীবনের কঠিনতম দুঃসময়ের পাঁকে পড়ে গেছেন আশরাফুল, তাঁর পাশে এসে দাঁড়ালেন গুরু ওয়াহিদুল গণি। প্রথম আলো ডটকমের সঙ্গে এক আলাপে আশরাফুলের আবিষ্কারক ও জাতীয় কোচ ওয়াহিদুল গণি বলেছেন, ‘আমি সবসময়ই আশরাফুলের সঙ্গে ছিলাম এখনো আছি।’ একান্ত প্রিয় শিষ্যটি যে অন্ধকার জগতে পা বাড়িয়েছেন, এই তথ্য তাঁর কাছেও বিস্ময়কর, অবিশ্বাস্য এক সংবাদ হয়ে ...
(মূল লেখা)
তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত খেলতে পারবেন না আশরাফুল
ইত্তেফাক
০৪ জুন, ২০১৩
যাচ ফিক্সিং নিয়ে আকসুর তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোন ধরনের প্রতিযোগিতামূলক খেলায় অংশ নিতে পারবেন না মোহাম্মদ আশরাফুল। আজ মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এ তথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আকসুর তদন্ত শেষ পর্যায়ে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তারা বিসিবিকে পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দেবে। আকসু ও বিসিবি যৌথভাবে ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করবে বলেও জানান তিনি। সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বিসিবি সভাপতি বলেন, 'আপনাদের অনুরোধ করব আর কয়েকটা দিন অপেক্ষা করুন। যারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের ...
(মূল লেখা)
আশরাফুল ফেঁসেছেন, ফাঁসিয়েছেন সাবেকদের!
বিডি নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম
০১ জুন, ২০১৩
ঢাকা: মোহাম্মদ আশরাফুল এভাবে সব ফাঁস করে দেবেন কেউ-ই তা ভাবেননি। আইসিসি`র দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিটের (আকসু) জেরার মুখে এতটাই ভড়কে গিয়েছিলেন আশরাফুল কোনো কিছু চেপে রাখতে পারেন নি। জিজ্ঞাসাবাদে উগড়ে দিয়েছেন নিজের অপকর্মগুলো। সঙ্গে অন্যেরটাও। আইসিসি`র দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তা ইউনিটের (আকসু) জিজ্ঞাসাবাদে বিপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার কথা তো স্বীকার করেছেনই, খুলে বলেছেন অতীতের অনৈতিক কর্মকান্ড জড়িত থাকার বিষয়টি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) কর্মকর্তারাও বিস্মিত হয়েছেন আশরাফুলের বক্তব্যে। বিসিবির একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, আকসুর মুখোমুখি হওয়ার আগে ...
(মূল লেখা)
আজীবন নিষিদ্ধ হতে পারেন আশরাফুল!
যায়যায় দিন
২৯ মে, ২০১৩
ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে এবার জড়িয়ে গেল বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক আশরাফুলের নাম। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএলে) ১০ লাখ টাকা বাংলাদেশি টাকার বিনিময়ে ম্যাচ গড়াপেটা করবেন বলে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের মালিকের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা নিয়েছিলেন বলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ। তবে আশরাফুলের দুর্ভাগ্য, ব্যাপারটা জানাজানি হয়ে যায় এবং আইসিসির দুর্নীতি নিরোধক শাখা এই নিয়ে তদন্ত শুরু করে। একই সঙ্গে বিষয়টি আরো দুর্ভাগ্যের, গ্ল্যাডিয়েটর্সের কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নেয়া ১০ লাখ টাকার চেক বাউন্স করে। টাইমস অফ ইন্ডিয়া গ্রুপের পত্রিকা কলকাতা থেকে প্রকাশিত ...
(মূল লেখা)
আশরাফুলের সঙ্গে অনেকেই
প্রথম আলো
২৬ মে, ২০১৩
ক্রীড়নকদের নামই কেবল জানা যাচ্ছিল না। নইলে খেলার বাইরে বিপিএল যে আসলে ক্রিকেট-জুয়ারও আসর, এমন ফিস্ফাস তো প্রথম আসর থেকেই শোনা যাচ্ছিল। ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সঙ্গে মোহাম্মদ আশরাফুলের সংশ্লিষ্টতা অনুমানের সত্যি প্রমাণিত হওয়া একটা অংশ মাত্র। তবে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের অধিনায়ক বলেই আশরাফুলের নাম এত জোরে শোনা যাচ্ছে। নইলে ম্যাচ ফিক্সিং তো আর স্পট ফিক্সিংয়ের মতো শুধু একজনের কাজ নয়। ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের দুটি ম্যাচ নিয়েও আইসিসির নিরাপত্তা ও দুর্নীতি দমন বিভাগের (আকসু) তদন্ত প্রতিবেদনে বেরিয়ে আসতে পারে সে রকম তথ্য। বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইরের আরও বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের নাম জড়িয়ে যেতে পারে বিপিএলের ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারির সঙ্গে। বিপিএল নিয়ে আইসিসির তদন্ত প্রায় শেষ পর্যায়ে হলেও বিসিবি সভাপতির কাছে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার আগে প্রয়োজন বোধ করলে আবারও বাংলাদেশে আসতে পারেন তদন্ত কর্মকর্তারা। চূড়ান্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে অপরাধের গুরুত্ব, মাত্রা এবং পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিসিবিই নির্ধারণ করবে দোষীদের শাস্তি। বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানিয়েছে, আশরাফুলের সঙ্গে ম্যাচ পাতানোয় সম্পৃক্ত হিসেবে দোষী প্রমাণিত হতে ...
(মূল লেখা)

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত অনলাইন ঢাকা গাইড -২০১৩